টি শার্টের পিছনে সেই গল্প _গা ঘেঁষে দাঁড়াবেন না _ফাস করলেন নিশো - OEBD | বিস্তারিত ভিতরে টি শার্টের পিছনে সেই গল্প _গা ঘেঁষে দাঁড়াবেন না _ফাস করলেন নিশো - OEBD | বিস্তারিত ভিতরে

টি শার্টের পিছনে সেই গল্প _গা ঘেঁষে দাঁড়াবেন না _ফাস করলেন নিশো

5437

একজন নারী বাসে দাড়িয়ে আছেন উনার গায়ে পরিধান টি শার্টে লেখা আছে_” গা ঘাঁষে দাড়াবেন না” এই লেখা গগুলো বাংলাদেশে ফেসবুক ব্যবহারকারীদের মাঝে ব্যাপক আলোচনার জন্ম দিয়েছে।
ঢাকার একটি ইন্টারনেট ভিত্তিক নারীদের পোশাক ও অলঙ্কার তৈরির প্রতিষ্ঠান এই ডিজাইনের টি-শার্টটি তৈরি এবং বাজারজাত করেছে। প্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধিকারীদের একজন এবং টি-শার্টের ডিজাইনার জিনাত জাহান নিশা বিবিসিকে বলেন, গণপরিবহনে নিজের সাথে হওয়া হয়রানিমূলক ঘটনার প্রতিবাদ হিসেবেই এ ধরনের পন্য তৈরি করার কথা মাথায় আসে বলে জানান তিনি।
“নিজে হয়রানির শিকার হওয়ার পরও প্রতিবাদ করতে না পারা এবং উপস্থিত মানুষজনকে অন্যায়কারীর পক্ষ নিতে দেখে সেদিন খুবই অপমানিত হয়েছিলাম।” তার আগে ও এ রকম ঘটনা বা যৌন হয়রানির শিকার হলে ও তার আগে এমন কোন প্রভাব পড়ে নি, বলে জানান মিজ নিশা।
তিনি বলেন, বাসে ভিড়ের মধ্যে গায়ের সাখে ধাক্কা লাগাটা খুবই স্বাভাবিক। কিন্তু অনেকেই ভিড়ের সুযোগটা নেন, যার প্রতিবাদ করা প্রয়োজন। বাসে অনেক পুরুষের সাথেই ছোঁয়া বা ধাক্কা লাগলেও সেসব পুরুষের মধ্যে কারা সুযোগ নেয়ার চেষ্টা করেন তা একজন নারী সহজেই বুঝতে পারেন।তবে এভাবে সমালোচনার পথে চলে যযাওয়া তার সফলতা বলে মনে ককরেন নিশা। বলেন, “যাদের উদ্দেশ্যে এই লেখা সম্বলিত টি-শার্ট তৈরি করা, তাদের গায়ে ঠিকই লেগেছে এবং তারাই কিন্তু এর সমালোচনা করছেন।”




2 thoughts on “টি শার্টের পিছনে সেই গল্প _গা ঘেঁষে দাঁড়াবেন না _ফাস করলেন নিশো

  1. Md Saeid Khan

    “ধুমপান হৃদ রোগের কারণ” কিংবা “ধুমপানে মৃত্যু হয়” প্যাকেটের গায়ে এমন লেখা দেখে কাউকে সিগারেট খাওয়া ছাড়তে দেখেছেন? মনে হয় না।
    “গা ঘেঁষে দাঁড়াবেন না” এমন সাইনবোর্ড গায়ে লাগিয়ে পুরুষদের সংযত করাা চেষ্টা করছেন? না দৃষ্টি আকর্ষন?
    লোকাল বাসেইতো চলি। মেয়েরাও চলে। তাদের গায়ে লাগাতো দূরের কথা, তাকানোর প্রয়োজনও মনে করিনা। তো ঢালাও ভাবে এসব প্রচারণার মানে কি?

    বাসে আপনাকে কোন পুরুষ হয়রানির করলে থপাস করে কানের গোড়ায় ২ টা মেরে দিন। দেখবেন আপনার আশেপাশে থাকা অন্য মহিলাদের চেয়ে পুরুষরাই আপনার হয়ে আগে এগিয়ে আসবে।
    ঘরে গিয়ে কয়দিন আপনার উঠতি বয়সী ভাইটিকে বলেছেন “এই বাসে উঠে মেয়েদের গায়ের সাথে লাগবিনা, মহিলাদের সংরক্ষিত আসন ছেড়ে বসবি, বয়স্কদের আগে বসতে দিবি”। এগুলা শিখান নাই।
    টি-শার্টে লিখে এসব সস্তা প্রচারণা ছাড়ুন। শিক্ষাটা নিজের পরিবার থেকে শুরু করেন।
    সচেতনতার ভাইরাল হতে গিয়ে ভাইরাস হয়ে যাবেন না।

    ©

    Reply

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *