এবার ৭ম শ্রেণীর ছাত্রীকে নিয়ে কোচিং শিক্ষক উধা'ও! - OEBD | বিস্তারিত ভিতরে এবার ৭ম শ্রেণীর ছাত্রীকে নিয়ে কোচিং শিক্ষক উধা'ও! - OEBD | বিস্তারিত ভিতরে
BREAKING NEWS
Search

এবার ৭ম শ্রেণীর ছাত্রীকে নিয়ে কোচিং শিক্ষক উধা’ও!

98

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে ৭ম শ্রেণীর ছাত্রীকে নিয়ে অজানার উদ্দেশ্যে পাড়ি জমিয়েছেন মোশাররফ হোসেন (১৯) নামের এক কোচিং শিক্ষক। ছাত্রীর নাম মোমেনা খাতুন (১৩), সে কায়েমপুর ইউনিয়নের নাপিতপাড়া গ্রামের মোঃ মুন্নাফ ব্যাপারীর মেয়ে।

ঘটনাস্থলে গিয়ে জানা যায়, শাহজাদপুর উপজেলার বাড়াবিল উত্তরপাড়ার মৃত সেরাজুল ইসলামের ছেলে মোশাররফ হোসেন (১৯) কায়েমপুর ইউনিয়নের বনপাড়ার রোজমেরী কিন্ডার গার্ডেন নামে একটি কোচিং সেন্টারের শিক্ষাকতা করতো। এরই এক পর্যায়ে একই ইউনিয়নের কায়েমপুর নাপিতপাড়া গ্রামের মোঃ মুন্নাফ ব্যাপারীর মেয়ে দুর্গাদহ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেনীর ছাত্রী মেমেনা খাতুনের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

এরই ধারাবাহিকতায় গত ৪ঠা অক্টোবর মোশাররফ হোসেন স্কুলছাত্রী মোমেনাকে নিয়ে অজানার উদ্দেশ্যে পাড়ি জমায়। গত ১৬ অক্টোবর কিশোরী মোমেনা খাতুনের বাবা মোঃ মুন্নাফ ব্যাপারী বাদী হয়ে শাহজাদপুর থানায় ৯ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত ২/৩ জনের নামে একটি অপহরণ মামলা দায়ের করে।

কিশোরী মোমেনা খাতুনের বাবা মোঃ মুন্নাফ ব্যাপারী জানান, স্কুলে যাতায়াতের পথে মোশাররফ আমার মেয়েকে উত্তক্ত করতো। ঘটনার দিন স্কুলে যাওয়ার পথে মোশাররফ ও তার কয়েকজন সহযোগী আমার মেয়েকে অপহরণ করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়।

শাহজাদপুর থানার উপপরিদর্শক বীরঙ্গ চন্দ্র মন্ডল মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, কিশোরী মোমেনা খাতুনকে উদ্ধার ও আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

খেলোয়াড়দের সব দাবি আমরা মেনে নেবঃ প্রধানমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ শেষে বললেন পাপন,

বুধবার (২৩ অক্টোবর) দুপুর ১টার পর প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে যান নাজমুল হাসান। সূত্র জানিয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর সাথে বিসিবি প্রধানের ‘গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা’ হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর দিকনির্দেশনা নিয়ে নিজের কার্যালয়ে এসে বিসিবি সভাপতি আবারো সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হওয়ার কথা রয়েছে।প্রধানমন্ত্রীর সাথে বৈঠক শেষে বৈঠকস্থল ত্যাগ করার সময় হাসিমুখেই ছিলেন বোর্ড সভাপতি।

ক্রিকেট অঙ্গনে চলমান সংকট নিরসনে বুধবার (২৩ অক্টোবর) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে বৈঠকে বসেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। প্রায় দুই ঘণ্টা আলোচনা শেষে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে বের হওয়া বিসিবি সভাপতি জানান, ‘খেলোয়াড়দের সব দাবি মানতে আমরা প্রস্তুত।’

গত সোমবার (২১ অক্টোবর) ‘হোম অব ক্রিকেট’ এ সংবাদ সম্মেলন ডেকে অনেকটা হুট করেই ক্রিকেটাররা ক্রিকেট বয়কটের ডাক দেন, ১১ দফা দাবির প্রেক্ষিতে। যদিও বোর্ড ক্রিকেটারদের ধর্মঘটকে ভালোভাবে নেয়নি। মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) সংবাদ সম্মেলনে ক্রিকেটারদের উপর তীব্র ক্ষোভ ও অসন্তোষ প্রকাশ করেন বিসিবি সভাপতি।

তবে খেলোয়াড়দের উপর অসন্তুষ্ট হলেও বোর্ড আলোচনার জন্য দরজা খুলে দেয়। বুধবার বিকালে খেলোয়াড়রা বোর্ডের সাথে আলোচনায় বসবেন বলে জানা গেছে।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *