কাশ্মিরে আমার বাবা-মা জন্মেছিলেন, এখানের প্রতি আমার বিশেষ ভালোবাসা : রশিদ - OEBD | বিস্তারিত ভিতরে কাশ্মিরে আমার বাবা-মা জন্মেছিলেন, এখানের প্রতি আমার বিশেষ ভালোবাসা : রশিদ - OEBD | বিস্তারিত ভিতরে

কাশ্মিরে আমার বাবা-মা জন্মেছিলেন, এখানের প্রতি আমার বিশেষ ভালোবাসা : রশিদ

439

আজাদ কাশ্মিরের মিরপুরে আমার বাবা-মা জন্মেছিলেন, তাই এখানের প্রতি আমার বিশেষ ভালোবাসা আছে। কথাগুলো বলেছেন ইংল্যান্ডের তারকা লেগ স্পিনার আদিল রশিদ।

সম্প্রতি পাকিস্তানের কাশ্মিরের মিরপুর অঞ্চলে ৫.৮ মাত্রার ভূমিকম্প হয়। এতে ৩৭ জন মানুষ প্রাণ হারান, পাঁচ শতাধিক আহত হন। মানুষের জানমালের ব্যাপক ক্ষতি হয়। ক্ষতিগ্রস্ত অঞ্চল পরিদর্শনে ইংল্যান্ড থেকে পাকিস্তানের কাশ্মীর সফরে যান ইংলিশ তারকা ক্রিকেটার আদিল রশিদ।

পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত ইংল্যান্ড তারকা আদিল রশিদ ক্ষতিগ্রস্ত অঞ্চল পরিদর্শনকালে সেখানকার মানুষের সঙ্গে কথা বলেন। অসহায় মানুষকে প্রয়োজনীয় দ্রব্যসামগ্রী দিয়ে হেল্প করেন। আর সেই ছবিগুলো টুইটারে শেয়ার দেয়া হয়।

আদিল রশিদ বলেন, মিরপুরের প্রতি আমার বিশেষ ভালোবাসা আছে- আমার বাবা-মা এখানে জন্মগ্রহণ করেছিলেন, তার কারণ আমি পাকিস্তানে এসেছি সাহায্য করার জন্য।

প্রসঙ্গত, ২০০৯ সালের জুলাই থেকে ইংল্যান্ডের হয়ে ১৯টি টেস্ট, ৯৯টি ওয়ানডে আর ৩৭টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে ২৩৯ উইকেট শিকারের পাশাপাশি ব্যাট হাতে ১ হাজার ১৩৬ রান সংগ্রহ করেন আদিল রশিদ।

সূত্র : ক্রিকট্রেকার

‘চিন্তাও করিনি যে আমি দলে থাকব না’

আগামী ১০ অক্টোবর থেকে মাঠে গড়াচ্ছে জাতীয় ক্রিকেট লিগের এবারের আসরের। কিন্তু এই আসর শুরুর আগে ক্রিকেটে ব্যস্ত সময় কাটিয়েছেন প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটাররা।

জাতীয় দলের পাশাপাশি ‘এ’ দল, অনূর্ধ্ব-১৯ দল, হাই পারফরম্যান্স ইউনিট ও অনূর্ধ্ব-২৩ দল ব্যস্ত সময় কাটিয়েছেন। অনেক ক্রিকেটার দলগুলোতে জায়গা পেলেও জায়গা পাননি পেসার কামরুল ইসলাম রাব্বি।

কোনো দলেই কেন সুযোগ পেলেন না এই ব্যাপারে কিছুই জানেন না রাব্বি। দলে সুযোগ না পেয়ে হতাশ হয়েছেন তিনি। তিনি বলেন, ‘চিন্তাও করিনি যে আমি দলে থাকব না। বিপিএল বা ডিপিএলে যে পারফর্ম করি তাতে আমার থাকা উচিৎ ছিল। দেশের প্রায় ৬৫-৭০ জন খেলোয়াড় বিভিন্নভাবে খেলার মধ্যে ছিল- জাতীয় দল, ‘এ’ দল, হাই পারফরম্যান্স দল, ক্যাম্প… ছিলাম না যে একদিক দিয়ে ভালো।’

তিনি আরো বলেন, ‘বোর্ড আমার কাছ থেকে আরও ভালো কিছু চাচ্ছে হয়ত। যেহেতু বোর্ড আমাদের অভিভাবক, ভালো করলে অবশ্যই তারা আবার সুযোগ দিবে বলে আমি মনে করি।’




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *